আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর।

শনিবার (২৯ জুন) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তাঁদের উপর এ হামলা চালানো হয়।

কোটা বাতিল বলে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রায় তিন মাস পার হলেও প্রজ্ঞাপন জারির কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় নতুন করে আন্দোলনের প্রস্তুতির জন্য বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলন ডাকে আন্দোলনকারীরা। এসময় সেখানে উপস্থিত হন- পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ ও নুরুল ইসলাম নুর। শিক্ষার্থীরা কিছু বুঝে উঠার আগেই তাদের উপর লাঠিশোটা নিয়ে হামলা হয়।
আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, সংবাদ সম্মেলনের উদ্দেশ্যে সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে আমরা গ্রন্থাগারের সামনে আসি। আমরা দাঁড়ানোর কিছুক্ষণের মধ্যে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলে আসার পরই বাংলাদেশের সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নূরের ওপর চড়াও হয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। হামলায় নেতৃত্বে ছিলেন ছাত্রলীগের ইমতিয়াজ বুলবুল বাপ্পী।

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, ছাত্রলীগের নেতৃত্বে এ হামলা হয়েছে। সশস্ত্র এই হামলায় মুহূর্তেই আন্দোলনকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোটা বাতিল ঘোষণার আড়াই মাসেও কোটা সংস্কারের কোনো প্রজ্ঞাপন জারি হয়নি। এ নিয়ে কোটা সংস্কার দাবিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আজ সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল।

আপনার মন্তব্য করুন...